1. admin@dailytatthyachitra.com : admin :
ডায়াবেটিস নিয়ে ভাবনা আর না আর না, ডাঃকামরুল ইসলাম মনা। - দৈনিক তথ্যচিত্র
বিজ্ঞপ্তি :
দৈনিক তথ্যচিত্র প্রত্রিকায় দেশের জেলা উপজেলায় প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে আগ্রহীগণ যোগাযোগ করুন -মোবাঃ ০১৭৩০-১৮৭৭৪২, e-mail - dailytatthyachitra2021@gmail.com

ডায়াবেটিস নিয়ে ভাবনা আর না আর না, ডাঃকামরুল ইসলাম মনা।

  • প্রকাশের সময় : Tuesday, May 25, 2021
  • 250 জন দেখেছেন

ডাঃ কামরুল ইসলাম মনা –
বর্তমান সময়ে ডায়াবেটিস, হার্টডিজিজ,উচ্চরক্ত চাপ,ক্যানসার,মেদভূড়ি জ্যামিতিক হারে বেড়ে চলছে,

যার লাগাম টেনে ধরার সাধ্য ঔষধের নেই, কারন রোগগুলো হল আধুনিক খাদ্য অভ্যাসের কূফল,

মূলতঃ যোগ, লাইফ স্টাইল, খাদ্য অভ্যাসকে পরিবর্তন করলেই সম্ভব এসকল রোগ নিরাময়ের।

অনেকে মনে করেন শুধু সুগার লেভেল কমলে ডায়াবেটিস ভালো হয় এটা সম্পূর্ণ ভুল কথা, ডায়াবেটিস মূলত মেটাবলিক ডিসঅর্ডার, তা প্যানক্রিয়াসের অসুস্থতার কারণে হয়। অতিরিক্ত এসিডিক খাবার এবং তেল ভাজা পোড়া, অলস জীবন যাপনের কারণেই বিটা কোষের উপর পামিটিক এসিডের আস্তরণ পড়ে হলে বিটা কোষ ইনসুলিন তৈরিতে অক্ষম হয়ে যায়। এতে সুগার লেভেল রক্তস্রোতে বেড়ে যায়, এলোপ্যাথিক ঔষধ গুলো শুধু সুগার লেভেল কমায় কিন্তু বিটা কোষ কে সুস্থ করে না তাই ঔষধ সারা জীবন চলতে থাকে, এতে সুগার লেভেল কমে কিন্তু শারীরিক জটিলতা কমেনা,এ চিকিৎসা পদ্ধতিতে রয়েছে শুভংকরের ফাঁকি, রোগীর যখন ডাক্তারের চেম্বারে যায় তখন ডাক্তার মাইন্ড সেটআপ করে দেয় এই রোগ কখনও ভাল হয় না সারা জীবন ওষুধ খেতে হবে। এই কেমিক্যাল জাতীয় ঔষধ গুলো যত খায় সাময়িকভাবে সুগার লেভেল কমলেও কিন্তু রোগ সারে না , তাই প্রাণায়াম যোগের পাশাপাশি প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে চিকিৎসা করলে সময় বেশি লাগলেও ডায়াবেটিস নির্মূল হয় যার প্রমাণ বিজ্ঞানী রবার্ট ইয়ং, লাইনাস পলিং, জেনিথ থমসন প্রমুখ দিয়েছেন। মনে রাখবেন —

“প্রকৃতিই শ্রেষ্ঠ ডাক্তার
প্রাকৃতিক খাদ্যই শ্রেষ্ঠ ঔষধ”

বিজ্ঞানী রবার্ট ইয়ং, মাইকেল মুরে , লাইনাস পলিং সহ অনেকই ডায়াবেটিস নির্মূল এর গ্যারান্টি দিয়েছে। আমরা বাংলাদেশে দেখেছি যেসকল ডায়াবেটিস রোগী কেমিক্যাল জাতীয় ঔষধ কম খায়, অথবা খায় না তারা নিয়মিত যোগব্যায়াম, খাদ্য অভ্যাস নিয়ন্ত্রণ, প্রাণায়াম যোগ, মেডিটেশন করলে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা সম্ভব, যারা যোগ ব্যায়াম করতে ভয় পান তারা যদি নিয়মিত ৪০ মিনিট হাঁটেন এবং দৈনিক ১২০০ গ্রাম সবজি, ২০০ গ্রাম মৌসুমী ফল, এক বাটি ডাল,১০০গ্রাম পাতা বহুল শাক, ৯০ গ্রাম আমিষ, ২৫০ গ্রাম কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট অর্থাৎ ভাত আলু রুটি।
মনে রাখবেন যারা ইনসুলিন অথবা ট্যাবলেট খান হঠাৎ করে ঔষধ বন্ধ করবেন না কারণ এটা আপনার শরীরের সাথে এডজাস্ট হয়ে গেছে তাই ধীরে ধীরে ঔষধ কমাবেন এবং দৈনিক দুই বেলার বারবারিন মাশরুমের মিশ্রণ খাবেন। এভাবে নিয়মিত খাবার-দাবার ব্যায়াম, মেডিটেশন করলে ডায়াবেটিস চিরতরে নির্মূল হবে ইনশাআল্লাহ। মনে রাখবেন কেমিক্যাল জাতীয় ওষুধ শুধুমাত্র সুগার লেভেল সাময়িকভাবে কমায় কিন্তু কখনও প্যানক্রিয়াসের বিটা কোষ সুস্থ করে না বরং রোগের তীব্রতা দিন দিন বেড়ে যায় সুগার লেভেল কম থাকলেও শারীরিক জটিলতা বহুগুণে বেড়ে যায়।

ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ, থাইরয়েড, মাইগ্রেন ইত্যাদি তে আক্রান্ত রোগীরা আসুন যাচাই করুন জলন্ত প্রমাণ উপলব্ধি করুন এবং নিজেকে, নিজের পরিবার কে জটিল সমস্যা থেকে মুক্ত রাখুন।
এসব জটিল সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে এবং বিস্তারিত জানতে ডাঃ কামরুল ইসলাম মনা- মোবাইল নং ০১৭১২২৭৬৭৫৩।

শেয়ার করে সহযোগিতা করবেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো সংবাদ
অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি ও বিষয়বস্ত কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি। © All rights reserved © 2021 দৈনিক তথ্যচিত্র
Design & Developed By AKATONMOY HOST BD